নগরীতে বিএম কলেজের ছাত্র খুন ॥ ঘাতক গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার | ২২:২০, ফেব্রুয়ারি ১৪ ২০১৯ মিনিট

পারিবারিক বিরোধে সৃষ্ট দুই স্বজনের মারামারি থামাতে গিয়ে বরিশাল নগরিতে এক কলেজ ছাত্র ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৮টায় এ ঘটনা ঘটেছে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যান এলাকায়। নিহত যুবকের নাম মোঃ রুবেল হাসান। সে বরিশাল সরকারি বিএম কলেজের ইংরাজী বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। এ ঘটনায় আহত অপর কলেজ ছাত্র নাইমুর রহমানকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে সরকারি হাতেম আলী কলেজে বাংলা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক কে গ্রেপ্তার করেছে। তার নাম মেহেদি হাসান রনি। পুলিশ ও সংশ্লিষ্টরা জানায় নগরির মল্লিক রোড এলাকার বাসিন্দা রাফসান নামের এক যুবকের সাথে রুবেল ও নাঈম সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধু উদ্যান এলাকায় ঘুরতে যায়। এরা পরস্পরের বন্ধু। এ সময় রাফসানের সাথে তার প্রাক্তন ভগ্নিপতি মেহেদী হাসান রনীর দেখা হতেই কথা কাটাকাটি ও মারামারি শুরু হয়। এ সময় রুবেল ও নাঈম এদের ছাড়াতে গেলে উভয়ই মেহেদির ছুরিকাঘাতের শিকার হয়। মেহেদীর আঘাত বুকে হওয়ার সে ঘটনাস্থলেই পড়ে যায়। দ্রুত তাকে হাসপাতালে আনা হলে ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষনা করে। পুলিশ বলেছে ঘাতক মেহেদী ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে থাকা সাদা পোষাকধারি পুলিশের কাছে হাতেনাতে গ্রেপ্তার হয়। মেহেদীর সাথে রাফসানের পারিবারিক বিরোধ ছিলো। সে রাফসানের বোনকে বিয়ে করে পরে তালাক দেয়। এর পরেও ক’দিন থেকে সে আবার রাফসানের বোনকে বিরক্ত করছিলো। পুলিশের ভাষায় এ নিয়েই আজকের অঘটনের সুত্রপাত হলে হতাহতের এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ বলেছে নিহত রুবেলের বাড়ি উজিরপুরের সাতলা এলাকায়। তার বাবার নাম মোঃ গিয়াস উদ্দিন। রুবেলের লাশ বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশ ঘরে রাখা হয়েছে।  ময়না তদন্তের পর লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের স্বজনরা কেউ বরিশাল এসে পৌঁছায়নি।