অনলাইন ডেটিং সার্ভিস চালু করলো ফেসবুক

ন্যাশনাল ডেস্ক | ১৮:০৩, সেপ্টেম্বর ০৬ ২০১৯ মিনিট

স্মার্টফোন এ্যাপ টিনডারের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে এধরনের অনলাইন ডেটিং সার্ভিস চালু করলো ফেসবুক। ‘ফেসবুক ডেটিং’ নামে এ সেবা সম্পূর্ণ ফ্রি। গত বছর মে মাসে কলম্বিয়ায় মোবাইল ডেটিং অ্যাপ্লিকেশন টিন্ডার ও বাম্বলকে টেক্কা দিতে পরীক্ষামূলকভাবে ফেসবুক ডেটিংসেবা চালু করে। এরপর আরেকধাপ এগিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বত্র এ সেবা চালুর মাধ্যমে ঘটকের ভূমিকা নিতে শুরু করলো ফেসবুক। অন্যান্য দেশে আগেই এধরনের সেবা চালু আছে ফেসবুকের। ফেসবুকে এবং ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিংক স্থাপনের মাধ্যমে পৃথক ডেটিং প্রোফাইল খোলা যায়। বিশে^ এধরনের ডেটিং সার্ভিসের মাধ্যমে ফেসবুক অন্তত ২শ কোটি ব্যবহারকারীকে তাদের নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত করতে যাচ্ছে। ফেসবুকের ডেটিং প্রকল্পের প্রধান নাথান শার্প বলেছেন, তাদের এ অ্যাপের মাধ্যমে পরিচিতজনরা নিজেদের মধ্যে ও অপরিচিতদের সঙ্গে সম্পর্কের সেতুবন্ধ ঘটাতে পারবে। এমনকি গোপনে সম্পর্ক গড়ে তোলার সুযোগ থাকছে ডেটিং এ্যাপে। তবে কারো অনুমতি না পাওয়া পর্যন্ত কেউ কারো সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারবে না। নাথান আরো বলেন, রোমান্টিক সঙ্গী খুঁজে পাওয়া একান্তই ব্যক্তিগত বিষয় বলে আমরা এধরনের ডেটিং এ্যাপকে নিরাপদ করে গড়ে তুলেছি। এর ব্যবহারকারীরা সম্পর্কের ক্ষেত্রে কাউকে ত্যাগ করতে চাইলে বা কারো কাছ থেকে তথ্য, ভিডিও বা চিত্র পাওয়া থেকে বিরত থাকতে চাইলে সাহায্য নিতে পারবেন। যারা প্রেম করতে চান, তাদের জন্য বিষয়টিকে আরও সহজ ও স্বস্তিকর করতে চাই আমরা। তবে অন্য ডেটিং এ্যাপের চেয়ে ফেসবুব ডেটিং এ্যাপের বৈশিষ্ট হচ্ছে এর ব্যবহার কারীরা নিজেদের চিত্র, গল্প ও ফুটেজ পোস্ট করতে পারবেন কিন্তু তা হতে হবে বস্তুনিষ্ট। গত বছর ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ বলেছিলেন সম্পর্কের ক্ষেত্রে শিকারি হিসেবে নয় বরং দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত ও সত্যিকারের বন্ধু গড়ে তোলার লক্ষ্যেই তার প্রতিষ্ঠান এধরনের এ্যাপ চালুর জন্যে কাজ করছে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে তিনটি বিয়ের একটি অনলাইনের মাধ্যমে হয়ে থাকে এবং ২০ কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারী এখনো একাকি বাস করছেন। যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও যে ১৯টি দেশে ফেসবুকের ডেটিং সেবা চালু আছে সেগুলো হচ্ছে আর্জেন্টিনা, বলিভিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, চিলি, কলাম্বিয়া, ইকুয়েডর, গায়ানা, লাওস, মালয়েশিয়া, মেক্সিকো, প্যারাগুয়ে, পেরু, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, সুরিনাম, থাইল্যান্ড, উরুগুয়ে ও ভিয়েতনাম। আগামী বছর ইউরোপে ফেসবুক ডেটিং সেবা চালু করতে যাচ্ছে।