হুইপ ও তার ছেলের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

ন্যাশনাল ডেস্ক | ১২:২৪, অক্টোবর ১২ ২০১৯ মিনিট

চট্টগ্রাম আবাহনীসহ বিভিন্ন ক্লাবে র‌্যাবের অভিযান নিয়ে ‘বিরূপ’ মন্তব্য করায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন সংসদের সরকারি দলের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী। এবার এ হুইপ ও তার ছেলে নাজমুল করিম চৌধুরীর বিরুদ্ধে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগে জমির উদ্দিন নামের এক যুবলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে পৌরসভার মাঝের ঘাটা এলাকার বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে আবু ছায়েদ নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী জমিরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। জমির পৌর যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ১০-১২ জন মুখোশধারী যুবক জমিরের পক্ষে স্লোগান দিয়ে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়া সদরে ঝটিকা মিছিল করে কয়েকটি মিনিটের মধ্যে পালিয়ে যান। এ সময় সড়কে চলাচলরত যানবাহন লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়ে অন্তত পাঁচটি যানবাহনের কাচ ভাঙচুর করা হয়। পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন বলেন, জমিরের বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় আগের একটি হত্যা, দুটি চাঁদাবাজি ও একটি মারামারি মামলা রয়েছে। প্রসঙ্গত,জাতীয় সংসদের হুইপ ও পটিয়ার সংসদ সদস্য শামসুল হক চৌধুরীর পুত্র নাজমুল করিম চৌধুরী শারুনের সাথে চট্রগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরীর কথোপকথনের একটি অডিও ফাঁস হয়। মুঠোফোনের সেই অডিও ভাইরাল হওয়ার ২৪ ঘণ্টা না যেতেই এমপি পুত্র শারুনের যুদ্ধংদেহী মনোভাব সম্পন্ন অস্ত্র মহড়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। এ ছাড়া নিজের সামনে দামি মদের বোতল ছড়িয়ে রেখে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছেড়ে দেন নিজেই। আর এ নিয়ে রাজনৈতিক ও সামাজিক অঙ্গনে শুরু হয় তীব্র প্রতিক্রিয়া।এ ঘটনা শুধু চট্টগ্রামেই নয়, সারা দেশেই আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করে।