খাগড়াছড়িতে যুবকের মৃত্যু, চিকিৎসকের ধারণা করোনা ভাইরাস

ন্যাশনাল ডেস্ক | ১১:২৭, মার্চ ২৬ ২০২০ মিনিট

খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে ভর্তি হওয়ার ১০ ঘণ্টা পর এক মারমা যুবকের মৃত্যু ঘটেছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ প্রচণ্ড জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সাজাই র্মামা (৩০) নামে ওই যুবক হাসপাতালে ভর্তি হন। তার পরিবার জানায়, তিনি গত ৯ মার্চ থেকে প্রচণ্ড জ্বর, ব্যাথা, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। তার বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ির নুনছড়ি গ্রামে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খাগড়াছড়ি ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মিটন চাকমা। জেলা সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবককে হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়। চিকিৎসাও চলছিল। বুধবার রাত আনুমানিক নয়টার দিকে তার মৃত্যু হয়। সিভিল সার্জন জানান, আপাতত: করোনা রোগী ধরেই লাশটির সৎকার করার জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. পূর্ণ জীবন চাকমা জানান, বিষয়টি সম্পর্কে দুপুরেই আইইডিসিআরে অবহিত করা হয়েছিল। মৃত ব্যক্তির রক্তের নমুনা করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য ঢাকায় আইইডিসিআরকে পাঠানো হবে। এদিকে রোগীর সংস্পর্শে আসায় হাসপাতালের দুইজন চিকিৎসক, দুইজন নার্স ও একজন আয়াকে হাসপাতালের প্রাতিষ্ঠানিক হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। মৃত রোগীর নমূনা পরীক্ষার রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত তারা কোয়ারেনটিনেই থাকবেন।