দেশে এবারই প্রথম উন্মুক্ত স্থানে হচ্ছে না ঈদের জামাত

মতবাদ ডেস্ক | ১৬:৩৫, মে ২২ ২০২০ মিনিট

জুমাতুল বিদা বা রমজানের শেষ জুমার নামাজ আদায় করেছেন মুসল্লিরা। সম্পূর্ণ ভিন্ন প্রেক্ষাপটে এবার রমজানের শেষ জুমা অনুষ্ঠিত হলো। তাই মুসল্লিরা শারীরিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে অংশ নেন জামায়াতে। নামাজ শেষে মোনাজাতে মহামারি থেকে রক্ষায় দেশ-জাতি ও সারা বিশ্বের মানুষের জন্য দোয়া করা হয়। এদিকে দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো উন্মুক্ত স্থানে হচ্ছে না ঈদের জামাত। তবে মুসল্লিরা মসজিদে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অংশ নিতে পারবেন ঈদের নামাজে। শুক্রবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে নামাজ শুরুর প্রায় দুই ঘণ্টা আগে থেকেই আসতে থাকেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। মসজিদ প্রবেশে প্রত্যেকটি স্থানে জীবাণুনাশক চেম্বার পার হতে হয় তাদের। নামাজ শুরুর আগেই পূর্ণ হয়ে যায় মসজিদ। জুমার নামাজ আদায়ের পর মুসল্লিরা আল্লাহর দরবারে মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করেন। সৃষ্টিকর্তার কাছে ক্ষমা চান মহামারি থেকে রক্ষায়। এদিকে ঈদুল ফিতরের জামাতের জন্য মসজিদগুলোকে প্রস্তুত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। ইসলামী চিন্তাবিদরা বলছেন, ধর্মগ্রন্থে খোলা ময়দানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও সংকটের এ সময়ে মসজিদে আদায় করা শরিয়ত সম্মত। করোনাভাইরাসের এ মহামারি থেকে রক্ষায় ঈদের নামাজ শেষে মহান আল্লাহর দরবারে সবাইকে দোয়া করার আহ্বান জানান আলেম সমাজ।