ঢাকা শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১

Motobad news

সংবাদকর্মীর ওপর বৃদ্ধাশ্রম প্রতিষ্ঠাতার হামলা

সংবাদকর্মীর ওপর বৃদ্ধাশ্রম প্রতিষ্ঠাতার হামলা
ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর মিরপুরের পাইকপাড়া দোতলা মসজিদের পাশে অবস্থিত ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এজ কেয়ার’ বৃদ্ধাশ্রমে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে ইত্তেফাকের অনলাইন বিভাগের দুই সংবাদকর্মী হামলার শিকার হয়েছেন।

আজ দুপুরের এই ঘটনায় ইত্তেফাকের সংবাদকর্মী মাঈন উদ্দিন আরিফ ও ক্যামেরাপারসন তানভীর আহাম্মেদ চোট পেয়েছেন। এছাড়া তাদের হাতে থাকা ক্যামেরা ও মাইক্রোফোন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দুই সংবাদকর্মীর ওপর এই হামলা চালিয়েছেন বৃদ্ধাশ্রমটির প্রতিষ্ঠাতা লিটন সমাদ্দার।

সন্তান ছাড়া বৃদ্ধাশ্রমে কেমন কাটছে বয়স্ক নারী-পুরুষদের ঈদ— এমন বিষয়কে কেন্দ্র করে একটি ভিডিও প্রতিবেদন তৈরির জন্য শুক্রবার পাইকপাড়ার বৃদ্ধাশ্রমে যান ইত্তেফাকের অনলাইন বিভাগের দুই সংবাদকর্মী। একপর্যায়ে সেখানে উপস্থিত হয়ে মাঈন উদ্দিন আরিফ ও তানভীর আহাম্মেদের দিকে তেড়ে আসেন বৃদ্ধাশ্রমের প্রতিষ্ঠাতা লিটন সমাদ্দার। তিনি অকথ্য ভাষায় হেনস্তা করেছেন দুই সংবাদকর্মীকে, এমনকি হাতও তুলেছেন। তার ব্যবহারে তানভীর আপত্তি জানালে তাকে ধাক্কা দেওয়ায় ক্যামেরা ও মাইক্রোফোন মেঝেতে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখন এগুলো ব্যবহারের অনপুযোগী হয়ে পড়েছে।

সংবাদকর্মী মাঈন উদ্দিন আরিফ বলেন, ‘বৃদ্ধাশ্রমটির কর্মকর্তাদের অনুমতি নিয়ে শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে সেখানে ক্যামেরাপারসন নিয়ে গিয়েছিলাম। সংবাদ সংগ্রহের একপর্যায়ে বাইরে থেকে এসে চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এজ কেয়ারের প্রতিষ্ঠাতা লিটন সমাদ্দার হঠাৎ আমার পাঞ্জাবির কলার ধরে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। আমার সহকর্মী তানভীর আহাম্মেদ এগিয়ে এলে তার ওপর চড়াও হন লিটন সমাদ্দার। তাকে ধাক্কা মেরে ক্যামেরা, মাইক্রোফোনসহ বিভিন্ন যন্ত্রাণুষঙ্গের ক্ষতিসাধন করেছেন তিনি। আমরা ইত্তেফাকের সংবাদকর্মী পরিচয় দেওয়ায় তিনি ঐতিহ্যবাহী এই সংবাদপত্র নিয়ে অকথ্য ভাষায় কথা বলেন।’

আরিফ ও তানভীর জানান, বৃদ্ধাশ্রমের অন্য কর্মীরা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে লিটন সমাদ্দারকে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। তবুও তিনি বারবার দুই সংবাদকর্মীর দিকে তেড়ে আসেন। মোবাইল ফোনে ঘটনার কিছু মুহূর্ত ধারণ করতে পেরেছেন তানভীর আহাম্মেদ।


এমবি