ঢাকা সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

Motobad news

রিটার্ন জমা দিয়েছেন ২৩ লাখ করদাতা

রিটার্ন জমা দিয়েছেন ২৩ লাখ করদাতা

দেশের সব কর অঞ্চল মিলে ২৩ লাখ আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে। এসব করদাতার কাছ থেকে তিন হাজার ২০০ কোটি টাকা পেয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশে ৭০ লাখের বেশি টিআইএনধারী করদাতার মধ্যে ৪৭ লাখ করদাতা রিটার্ন জমা দেননি। যাঁরা এখনো দিতে পারেননি, তাঁরা জরিমানাসহ রিটার্ন জমা দিতে পারবেন। এ ছাড়া সময় চেয়ে আবেদন করা করদাতাদের কাছ থেকেও আরো আয়কর রিটার্ন জমা পড়বে।

এনবিআরের হিসাবে দেখা যায়, গত অর্থবছরে (২০২০-২১) দেশে টিআইএনধারী ছিলেন ৫৬ লাখ, যাঁদের মধ্যে ২৪ লাখ ৩০ হাজার জন আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছিলেন। ২০২১-২২ অর্থবছরে করদাতাদের জন্য অনলাইনে নতুন আয়কর রিটার্ন ই-ফাইলিং সিস্টেম চালু করেছে এনবিআর। সাড়াও পড়েছে বেশ ভালো। অনলাইনে রিটার্ন জমা পড়েছে ৬১ হাজার।

আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার নির্ধারিত সময় গত রবিবার শেষ হয়েছে। শেষ দিনে করদাতাদের সুবিধার্থে বিকেল ৫টার পরিবর্তে রাত ৮টা পর্যন্ত রিটার্ন জমা দেওয়ার সুযোগ ছিল কর অঞ্চলগুলোতে।

করোনার কারণে আয়কর মেলার আয়োজন করা হয়নি। মেলার পরিবর্তে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ৩১টি কর অঞ্চলের ৬৪৯টি সার্কেলে মেলার মতো উৎসবমুখর পরিবেশে রিটার্ন জমা নেওয়া হয়। গত ৩০ নভেম্বর ২০২১-২২ করবর্ষের ব্যক্তি শ্রেণির করদাতাদের রিটার্ন দাখিলের শেষ দিন ছিল। তবে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এনবিআর সেই সময়সীমা এক মাস বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করে। কিন্তু ৩১ ডিসেম্বর ও ১ জানুয়ারি সরকারি ছুটির দিন হওয়ায় রিটার্ন জমার সময় বাড়িয়ে ২ জানুয়ারি পর্যন্ত করা হয়।

এনবিআরের দ্বিতীয় সচিব (জরিপ, কর ফাঁকি ও আইটিপি রেজিস্ট্রেশন, কর-১৫) দীপক কুমার পাল বলেন, ‘২০২১-২২ করবর্ষে দেশের সব কর অঞ্চল মিলে ২৩ লাখ আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে। এসব করদাতার কাছ থেকে তিন হাজার ২০০ কোটি টাকায় আদায় হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘গত ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছিল ২১ লাখ। গত ১৬ দিনে রিটার্ন জমা পড়েছে মাত্র দুই লাখ।’

কর অঞ্চল-৬-এর কর কমিশনার মোহাম্মদ জাহিদ হাসান বলেন, ‘রিটার্ন জমা দিতে করদাতাদের জন্য সময় বারবার বাড়ানো হলেও রিটার্ন জমার সংখ্যা তেমন বাড়েনি। কর অঞ্চল-৬-এ রিটার্ন জমা দিয়েছেন ৯২ হাজার করদাতা। এর মধ্যে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ৮২ হাজার রিটার্ন জমা পড়েছিল। গত অর্থবছরে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত রিটার্ন জমা পড়েছিল ৮০ হাজার।’ তিনি বলেন, ‘যাঁরা নিয়মিত করদাতা, তাঁরা নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই (নভেম্বর মাসে) আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন।’

 


এমবি