ঢাকা শনিবার, ১৫ মে ২০২১

Motobad news

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জরিপে এগিয়ে রক!

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জরিপে এগিয়ে রক!

হলিউড অভিনেতা ডোয়াইন জনসন। তারও আগে তার পরিচিতি ‘দ্য রক’ হিসেবে। রেসলিং দুনিয়ার এ মানুষটি ২০১৬ সালের শেষ দিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের সুপ্ত ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেছিলেন। রক বলেছিলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট হতে চান! যদিও অভিনয় সফলতার চাপে সে আকাঙ্ক্ষা আর বাস্তবে রূপ পায়নি।

তবে এবার পা রাখতে চান মার্কিন রাজনীতিতে। আভাসটাও সে রকমই মিলছে। আর সেখানে নামলে যে ভালো কিছু হতে পারে সেরকমই বলছে এক জরিপ।

ডোয়াইন জনসন সম্প্রতি ঘোষণা দিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান, যদি জনগণ চায়। আর সে কারণে তার জনপ্রিয়তা যাচাইয়ে একটি প্রতিষ্ঠান জরিপও চালিয়েছে।

মার্কিন জরিপকারী প্রতিষ্ঠান পিপস্লের করা সে জরিপ বলছে, দেশটির ৪৬ শতাংশ মানুষ চান ডোয়াইন জনসন মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে লড়াই করুক।

প্রতিষ্ঠানটি ৩০ হাজার মার্কিনিকে তাদের পরিসংখ্যান তৈরিতে মত নিয়েছে। এতে আরও কয়েকজন সেলিব্রেটির নাম প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে ভোট পেয়েছে। এরমধ্যে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ৩০, অপরাহ উইনফ্রে ২৭ ও টম হ্যাঙ্কস পেয়েছেন ২২ শতাংশ ভোট।

জরিপের ফল দেখে আপ্লুত রক। ৯ এপ্রিল এক টুইটে এ তারকা বলেন, ‘সত্যিই যদি কখনও জনগণের সেবা করার সুযোগ আসে, তবে সেটা হবে আমার জন্য বিশেষ।’

ডোয়াইন জনসন ২০১৬ সালে সামাজিকমাধ্যমে লেখার পর ২০১৭ সালে জনসম্মুখে এক অনুষ্ঠানে নির্বাচন করার কথা বলেছিলেন।

এই মেগাস্টারের ভাষ্যটি ছিল এমন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আমি অংশ নিতে পারি, যদি জনগণ আমাকে বিবেচনা করেন। আমি আমার একক সিদ্ধান্ত নিয়ে উল্লসিত হতে চাই না। এর পুরোটাই নির্ভর করছে জনগণের ওপর। তাই আমি অপেক্ষা করতে চাই এবং তাদের কথা শুনতে চাই। আমি আমার আঙুল জনগণের বুকে রাখতে চাই; তাদের প্রতিধ্বনিতে আমার কান পাততে চাই।’

এরপর গত ফেব্রুয়ারি মাসে আরেক সাক্ষাৎকারে ডোয়াইন বলেন, ‘যদি জনগণ চায়, তাহলে আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়াই করবো। আমি অপেক্ষা করছি, সবার কথা শুনছি।’


/ইই