ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২

Motobad news

নিজেদের কন্ডিশনে জিম্বাবুয়ে ‘ডেঞ্জারাস’

নিজেদের কন্ডিশনে জিম্বাবুয়ে ‘ডেঞ্জারাস’

পরিসংখ্যানটা চমকপ্রদ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ১৯ ওয়ানডের প্রতিটিই জিতেছে বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নির্দিষ্ট কোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে জয়ের এমন ধারাবাহিকতা আর নেই বাংলাদেশের। কিন্তু, এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সেই আত্মবিশ্বাস কি পাচ্ছে বাংলাদেশ? তামিমের কণ্ঠে নরম সুর। জিম্বাবুয়ের এক সাংবাদিকের প্রশ্নে বললেন,‘এই মুহূর্তে জয়ের ছন্দে নেই আমরা। হারের ছন্দে আছি (হাসি)।’

টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে হেরে যাওয়ায় সুখকর পরিস্থিতিতে নেই অতিথি শিবির।  তবে ফরম্যাট ভিন্ন হওয়ায় তীব্র লড়াইয়ের কথা জানিয়ে রাখলেন ওয়ানডে অধিনায়ক,‘যদিও এটা ভিন্ন ফরম্যাট। ভিন্ন চ্যালেঞ্জ। হ্যাঁ ওয়ানডে দল ভালো করছে। র্যাং কিংয়ে আমরা জিম্বাবুয়ের চেয়ে এগিয়ে কিন্তু র্যাং কিং মাঠের ক্রিকেটে কোনো প্রভাব রাখতে পারে না। যে দল ভালো ক্রিকেট খেলে তারাই ম্যাচ জেতে। আপনি যদি তাদের মাটিতে তাদেরকে হারাতে চান তাহলে সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে হবে। আপনার সবগুলো কাজ ভালো করতে হবে। আমরা যদি নিজেদের কাজটা ঠিকঠাক করি তাহলে ভালো কিছু হবে।’

জিম্বাবুয়ের মাটিতে জিম্বাবুয়েকে হারানো সহজ হবে না। কিছুদিন আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে তাদেরকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে এই ফরম্যাটে নিজেদের সামর্থ্য দেখিয়েছে। সেই আত্মবিশ্বাস কাজে লাগানোর কথা বলেছেন তামিম। 

‘অবশ্যই আমরা ধারাবাহিকতা রাখতে চাই। যদি দল হিসেব করেন আমরা ভালো দল। কিন্তু ক্রিকেট খেলায় কে ভালো দল সেটা হিসেব করে হয় না। নির্দিষ্ট দিনে কে ভালো খেলছে সেটা দিয়ে জয় পরাজয় নিশ্চিত হয়। টি-টোয়েন্টি সিরিজে দেখেছেন, তারা আমাদের থেকে ভালো ক্রিকেট খেলেছে এবং সিরিজ জিতেছে। এখানেও নতুন কিছু হবে না। যদি তাদেরকে হারাতে হয় অবশ্যই আমাদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে হবে। অন্যথায় নিজেদের কন্ডিশনে জিম্বাবুয়ে ডেঞ্জারাস।’

নিজেদের পরিকল্পনা নিয়ে তামিম যোগ করেন,‘যে জিনিসগুলো আমরা এতোদিন ধরে ঠিকঠাক মতো করে আসছি, বাজে যে ভুলগুলো করছিলাম সেগুলো ঠিক করা, প্রক্রিয়া অনুসরণ করা, কঠিন যে সময় আসবে সেগুলোতে আমরা যেন জিততে পারি...পরিকল্পনা এটাই থাকবে।’


এএজে