ঢাকা রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

Motobad news

করোনা: বরিশালে মৃত্যু আরও ২০, শনাক্ত ৬৫৬

করোনা: বরিশালে মৃত্যু আরও ২০, শনাক্ত ৬৫৬
ফাইল ছবি

গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল বিভাগে নতুন করে ৬৫৬ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন। যা নিয়ে বিভাগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩২ হাজার ৮৪ জনে।

একই সময়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসাপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ৯ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনা আক্রান্ত ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর এ নিয়ে গেল ২৪ ঘণ্টায় গোটা বরিশাল বিভাগে করোনায় আক্রান্ত ১১ জন রোগীর মৃত্যু শনাক্ত হয়েছে।

করোনায় মৃতদের মধ্যে বরিশালের ২ জন, পটুয়াখালীর ২ জন, ভোলার ১ জন, পিরোজপুরের ১ জন,বরগুনার ২ জন এবং ঝালকাঠির ৩ জন রয়েছেন। যা নিয়ে বরিশাল বিভাগে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৪৫৩ জনে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস।

তিনি জানান, মোট আক্রান্ত ৩২ হাজার ৮৪ জনের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৮ হাজার ৬৩৮ জন।  

আক্রান্ত সংখ্যায় বরিশাল জেলায় নতুন ২৬৫ জন নিয়ে মোট ১৩ হাজার ৫৩০ জন, পটুয়াখালী জেলায় নতুন ১৭৮ জন নিয়ে মোট ৪ হাজার ১২৯ জন, ভোলা জেলায় নতুন ১১৩ জনসহ মোট ৩ হাজার ৫১৫ জন, পিরোজপুর জেলায় নতুন ২৪ জনসহ মোট ৪ হাজার ২৩৪ জন, বরগুনা জেলায় নতুন ২৮ জন নিয়ে মোট আক্রান্ত ২ হাজার ৭৭৪জন এবং ঝালকাঠি জেলায় নতুন ৪৮ জন নিয়ে মোট দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৯০২ জন।

এদিকে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধুমাত্র বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে নয়জনের এবং করোনা ওয়ার্ডে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। যা নিয়ে শুধুমাত্র শেবাচিম হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডেই উপসর্গ নিয়ে ৭৬২ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৭৬২ জনের মধ্যে ৯৯ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনো হাতে পাওয়া যায়নি।

ওই হাসপাতাল পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় (বৃহস্পতিবার) সকাল পর্যন্ত শেবাচিমের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ২৭ জন ও করোনা ওয়ার্ডে ২৭ জন ভর্তি হয়েছেন। করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ৩০১ জন চিকিৎসাধীন। এদের মধ্যে ১৬৭ জন করোনা ওয়ার্ডে এবং ১৩৪ জন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আরটি পিসিআর ল্যাবে মোট ১৮৮ জন করোনা পরীক্ষা করান। এর মধ্যে ৫২.৬৫ শতাংশ পজিটিভ শনাক্তের হার। 


এমইউআর