ঢাকা শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১

Motobad news

প্রবাসী স্বামীর কাছে নগ্ন ছবি, লজ্জায় স্ত্রীর আত্মহত্যা

প্রবাসী স্বামীর কাছে নগ্ন ছবি, লজ্জায় স্ত্রীর আত্মহত্যা

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে এডিট করে প্রবাসে স্বামীর কাছে নগ্ন ছবি পাঠানোর পর লজ্জায় তানজিনা আক্তার রুমি নামে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। পুলিশ গতকাল লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে। তানজিনা আক্তার উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের পেছামুড়ি গ্রামের সৌদি প্রবাসী আলাউদ্দিনের স্ত্রী। জানা গেছে, রবিবার সন্ধ্যায় তানজিনা আক্তার রুমি পরিবারের সদস্যদের আড়ালে বিষপান করে অসুস্থ হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

সেখানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানেও তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করলে পথিমধ্যে মহাসড়কের দাউদকান্দি নামক স্থানে তানজিনার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন তার শ্বশুর আবুল কালাম। তানজিনার শ্বশুর আবুল কালাম জানান, তার পুত্রবধূ তানজিনাকে একই এলাকার মনু মিয়ার ছেলে বখাটে আনোয়ার হোসেন দীর্ঘদিন যাবৎ কুপ্রস্তাবসহ উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ বিষয়ে এলাকায় একাধিক সালিশ দরবার হলেও বখাটে আনোয়ার ক্ষিপ্ত হয়ে তার পুত্রবধূর ছবি তুলে অশ্লীল ছবিতে রূপান্তরিত করে ইমোর মাধ্যমে প্রবাসে থাকা তানজিনার স্বামী আলাউদ্দিনকে পাঠাতো। এছাড়াও আনোয়ার বিভিন্ন সময়ে এসব অশ্লীল ছবি তার সহপাঠীদেরও পাঠিয়ে পুত্রবধূকে আরও মানসিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। এসব অশ্লীল ছবিকে পুঁজি করে আনোয়ার বিভিন্ন সময় তার পুত্রবধূর কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করত। অন্যথায় তাকে বাঁচতে দেবে না বলে হুমকি দিত। রবিবার গভীর রাতে তানজিনা তার সাড়ে ৪ বছর বয়সী একমাত্র মেয়ে আলো আক্তারকে নিয়ে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হলে আনোয়ার তানজিনাকে মারধর করে। এ সময় আনোয়ার তানজিনার হাতে থাকা এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয়। এ অপমান সইতে না পেরে তানজিনা আক্তার সন্ধ্যায় পরিবারের সদস্যদের আড়ালে বিষপান করে। তানজিনার ভাই রিয়াদ জানান, তার বোনকে বখাটে আনোয়ারসহ একটি চক্র দীর্ঘদিন যাবৎ খারাপ প্রস্তাবসহ নানাভাবে হয়রানি করে আসছিল। তাদের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তানজিনা বিষপান করে। এতে তার মৃত্যু হয়। রিয়াদ আরও জানান, তার বোন বখাটে আনোয়ার থেকে রেহাই পেতে বিভিন্ন সময়ে তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারগুলো পরিবর্তন করলেও বখাটে আনোয়ার তানজিনার দুই জা সুমি ও প্রিয়ার সহায়তায় ইমো নম্বরগুলো সংগ্রহ করে পুনরায় তাকে উত্ত্যক্ত করত বলে মৃত্যুর আগে তার বোন তাদের জানিয়ে যায়। 

চৌদ্দগ্রাম থানার পরিদর্শক অপারেশন এসএম আরিফুল ইসলাম জানান, সংবাদ পেয়ে গৃহবধূ তানজিনা আক্তারের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবারের লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিবাদীগণের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এমবি