ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১

Motobad news

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ১ মাসে ৬৫ হাজার কোটি টাকার লেনদেন

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ১ মাসে ৬৫ হাজার কোটি টাকার লেনদেন

কোরবানির ঈদের পরের মাস আগস্টে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ছন্দঃপতন ঘটলেও সেপ্টেম্বর মাসে লেনদেন বেড়েছে। এ মাসে দৈনিক দুই হাজার ১৭১ কোটি টাকার বেশি লেনদেন হয়েছে, যা আগস্ট মাসে ছিল দুই হাজার সাত কোটি টাকা। শুধু লেনদেনই নয়, এই সেবায় গ্রাহকও বাড়ছে দ্রুতগতিতে। এক মাসের ব্যবধানে নতুন গ্রাহক বেড়েছে প্রায় ২১ লাখ। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, পরিবার-পরিজনের কাছে টাকা পাঠানোসহ বিভিন্ন সুবিধার কারণে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মোবাইল ব্যাংকিং। ফলে প্রতিদিনই গ্রাহক বাড়ার সঙ্গে লেনদেনও বাড়ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে ১৩টি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং পরিচালনা করছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাস শেষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নিবন্ধিত গ্রাহক সংখ্যা দাঁড়ায় ১০ কোটি ৬৪ লাখ ৭১ হাজার ২৭০ জন। এর মধ্যে পুরুষ গ্রাহক পাঁচ কোটি ৮১ লাখ ৪৪ হাজার ৪৯ জন। আর নারী গ্রাহক চার কোটি ৮০ লাখ ২৪ হাজার ৬৩০ জন। এ সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ লাখ ৪২ হাজার ৩৪৫ জন। এর মধ্যে শহরে এজেন্ট ছয় লাখ ৩০ হাজার ৯৩২ জন। আর গ্রামের এজেন্ট পাঁচ লাখ ১১ হাজার ৩১৩ জন।

প্রতিবেদনে দেখা যায়, সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ৬৫ হাজার ১৪১ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয়েছে দুই হাজার ১৭১ কোটি টাকা, যা একক মাস ও দৈনিক লেনদেনে এ যাবৎকালে তৃতীয় সর্বোচ্চ। আগের মাস আগস্টে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন হয় ৬২ হাজার ২৩০ কোটি টাকা। ওই মাসে দৈনিক লেনদেন হয় দুই হাজার সাত কোটি টাকা। এখন পর্যন্ত মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় সর্বোচ্চ লেনদেন হয় গত মে মাসে। ওই মাসে মোট লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৭১ হাজার ২৪৭ কোটি টাকা। আর দৈনিক লেনদেনের পরিমাণ ছিল দুই হাজার ২৯৮ কোটি টাকা। আর গত জুলাইয়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৬ হাজার ৩৮৭ কোটি টাকার লেনদেন হয়।

শুধু অর্থ পাঠানোই নয়, অনেক নতুন নতুন সেবাও মিলছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে। বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানির বিল পরিশোধ, কেনাকাটার বিল পরিশোধ, বেতন-ভাতা প্রদান ও বিদেশ থেকে টাকা পাঠানোসহ (রেমিট্যান্স) বিভিন্ন সেবা দেওয়া হচ্ছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, সেপ্টেম্বর মাসে মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় টাকা জমা পড়ে (ক্যাশ ইন) ১৯ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকা। আর ১৬ হাজার ৪৬৩ কোটি টাকা উত্তোলন (ক্যাশ আউট) হয়। এ মাসে কেনাকাটার বিল পরিশোধ হয় দুই হাজার ৯৩৬ কোটি টাকা। এ সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহার করে ব্যক্তির হিসাব থেকে আরেক ব্যক্তির হিসাবে ১৯ হাজার ৭৯৪ কোটি টাকা পাঠানো হয়। এ ছাড়া সেপ্টেম্বর মাসে কর্মীদের বেতন-ভাতা প্রদান করা হয় দুই হাজার ৪৫৮ কোটি টাকা। গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানিসহ বিভিন্ন সেবার বিল পরিশোধ হয় এক হাজার ৩৩১ কোটি টাকার। আর মোবাইলে টকটাইম কেনা হয় ৬৫১ কোটি টাকার।

 


এমবি