ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

Motobad news

বাসে আগুন দিয়ে পালানোর সময় একজনের মৃত্যু

বাসে আগুন দিয়ে পালানোর সময় একজনের মৃত্যু
গুগল নিউজে (Google News) দৈনিক মতবাদে’র খবর পেতে ফলো করুন

বিএনপি-জামায়াতের ডাকা হরতালের দিন রাজধানীর মোহাম্মদপুরের আসাদ এভিনিউয়ে ‘বাসে আগুন লাগিয়ে পালানোর সময়’ একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। রোববার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি বর্তমান আদাবর থানাধীন ৩০নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক আবদুর রশিদ। তবে স্থানীয় বিএনপি নেতাদের দাবি, দলের ঝটিকা মিছিল শেষে ফেরার পথে তুলে নিয়ে পিটিয়ে তাকে নির্মাণাধীন ভবন থেকে ফেলে হত্যা করা হয়েছে।

ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) আজিজুল হক স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, রোববার  সকাল ১০টার দিকে মোহাম্মদপুর থানার টাউন হল শহীদ পার্ক জামে মসজিদের সামনে পরীস্থান পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে (ঢাকা মেট্রো ব-১১-৭৩২৯) আগুন দেয় হরতাল সমর্থনকারী। এতে বাসের সব সিট পুড়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।


তিনি বলেন, যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা ধাওয়া দিলে আসাদ এভিনিউ সড়কের পাশের নির্মাণাধীন বহুতল ভবনে উঠে যান ওই ব্যক্তি। পরে ভবন থেকে নিচে পড়ে মারা যান তিনি। তার কাছে একটি আইডি কার্ড পাওয়া গেছে। সেখানে তার নাম লেখা আব্দুল রশিদ। বয়স আনুমানিক ৩৬ বছর।


তরিকুল ইসলাম নামে প্রত্যক্ষদর্শী এক রিকশাচালক বলেন, সাত থেকে আট জন লোক চলন্ত বাসটিকে থামিয়ে যাত্রীদের নেমে যেতে বলে। পরে তারা বাসটিতে আগুন লাগিয়ে দেয়। সলিমুল্লাহ রোডের দক্ষিণ মাথার উল্টাপাশে মোহাম্মদপুর ক্লাবের মাঠ দিয়ে পালিয়ে যায়।

লাশ উদ্ধারের সময় স্থানীয় লোকজন জানান, ৭ তলা ওই ভবন থেকে পাশের তিনতলা একটি ভবনের ছাদে লাফ দেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তিনি দুই ভবনের মধ্যখানে পড়ে যান, এতেই তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে মো. আবদুর রশিদের পরিচয় নিশ্চিত করে ঢাকা উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক বলেছেন, হরতালের সমর্থনে মোহাম্মদপুর টাউন হল এলাকায় ঝটিকা মিছিল শেষে ফেরার পথে আওয়ামী লীগের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা পুলিশের সামনে থেকেই আবদুর রশিদকে তুলে নিয়ে যায়। পরে তাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে এবং একটি নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ থেকে ফেলে নির্মমভাবে হত্যা করে।

পরে দুপুরের দিকে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় নিহত ব্যক্তির লাশ নিয়ে যায় মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। আর পুড়ে যাওয়া বাসটি জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়েছে।

আগে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মোহাম্মদপুরের চার রাস্তা মোড়ে পার্ক করে রাখা স্বাধীন পরিবহনের একটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। এই ঘটনায় দুজনকে আটক করেছেন স্থানীয়রা। তবে তাদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।


এইচকেআর
গুগল নিউজে (Google News) দৈনিক মতবাদে’র খবর পেতে ফলো করুন