ঢাকা সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১

Motobad news

মায়ের ফিরিয়ে দেয়া শাড়িতে ঝুলেই মেয়ের আত্মহত্যা 

মায়ের ফিরিয়ে দেয়া শাড়িতে ঝুলেই মেয়ের আত্মহত্যা 

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার রামাগাড়ী গ্রামে ঈদ উপলক্ষে মাকে দেয়া নতুন শাড়ি ফিরিয়ে দেয়ায় অভিমানে সেই শাড়িতেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মেয়ে।

রোববার (২৫ এপ্রিল) নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে শনিবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার রামাগাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ১০ বছর আগে এক ছেলে সন্তানসহ স্বামীর সঙ্গে শরিফা বেগমের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। তারপর থেকে দরিদ্র বাবার বাড়িতে ছেলেকে রেখে ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরি করতেন তিনি। এরই মধ্যে স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে আরও দুই বোন বাবার বাড়িতে এসে উঠেছে।

গত বছর করোনা মহামারির প্রভাবে গার্মেন্টসের চাকরি হারিয়ে শরিফা বেগমও বাবার বাড়িতে ফিরে আসেন। এ কারণে দরিদ্র বাবা-মা চরম সমস্যায় পড়েন। নানা অভাব-অনটনের জেরে সম্প্রতি তাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এ অবস্থায় শনিবার শরিফা তার মা সফুরা বেগমকে ঈদ উপলক্ষে একটি নতুন শাড়ি কিনে দেন। তবে তার মা শাড়িটি নিতে অস্বীকৃতি জানান। এ কারণে অভিমানে শোবার ঘরের তীরের সঙ্গে ওই শাড়ি বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম জানান, রোববার মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।


টিএইচএ/